ভিডিও ভাইরাল, তবে হলো না কোনো শাস্তি

0 ৫৪৪

বঙ্গভবনের সামনে দরিদ্র এক কিশোরীকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক পিটিয়েছে পুলিশ। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে এমনটাই দেখা গেছে।

৭ই ফেব্রুয়ারি মো. আতিকুর রহমান ফয়সাল নামে এক পথচারী ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও আপলোড করেন ইউটিউবে।

সেখানে দেখা যায় সড়ক দ্বীপের কাছে পড়ে থাকা কিশোরীকে একের পর এক চড় মারছেন এবং টেনেহিঁচড়ে অন্যত্র সরানোর চেষ্টা করছেন এক পুলিশ সদস্য। মেয়েটি প্রতিরোধের চেষ্টা করছে। এক পর্যায়ে তার মাথার এক পাশে ধাক্কা দিয়ে এক দিকে ফেলে দেন ওই পুলিশ সদস্য।

এ সময় মেয়েটিকে ঘিরে রাখা আরো দুই পুলিশের একজন হ্যাচকা টানে তাকে একদিকে তুলে আনেন। কিছুক্ষণ আগেও তারা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে হাসছিলেন।

এরপর তাদের সঙ্গে থাকা ট্রাফিক পুলিশের আরেক সদস্য পাশে পড়ে থাকা ব্যাগ মেয়েটির হাতে দিয়ে রাস্তার একপাশে চলে যেতে বলে।

এক পর্যায়ে মেয়েটি তার ব্যাগ নিয়ে সড়ক বিভাজকের দিকে গেলে সেদিকে নজর দিয়ে ভিডিওধারণকারীর দিকে এগিয়ে যান পুলিশ সদস্যরা। তাকে গালিগালাজ করেন এবং কেন ভিডিও করা হচ্ছে তা জানতে চান।

এই ভিডিওটি ইউটিউবে পোস্ট করার পর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকেই ভিডিওটি শেয়ার করে অকারণে মেয়েটিকে নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়ে এর বিচার চেয়েছেন।

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার ভিডিওটি তার ফেসবুক পাতায় শেয়ার করেছেন, সেখানে এটি এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে সাড়ে চার লাখেরও বেশি বার। শেয়ার হয়েছে প্রায় ২০ হাজার বার।

মন্তব্যে প্রতেকেই নিন্দা জানিয়েছেন এই ঘটনার।কিন্তু এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কোনো আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ বা বিচারের দাবি ওঠেনি। বাংলাদেশে বিচার কি তবে সবার জন্য নয়?

ঢাকা মহানগর পুলিশের কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, ওই দিন সকালে ওই পথ দিয়ে একজন অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির (রাষ্ট্রপতি) যাতায়াতের কথা ছিল। এ জন্য সড়ক ফাঁকা করা হচ্ছিল। সেখানে পুলিশের প্রো রক্ষা বিভাগের সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছিলেন। মেয়েটি সড়ক থেকে সরতে চাচ্ছিল না। এ কারণে তাকে সরানোর চেষ্টা করা হচ্ছিল। তা ছাড়া মেয়েটির কাছে একটি ব্যাগও ছিল। সেটি পরীক্ষা করা হয়েছে।

কিন্তু ভিডিওতে সড়কের দু’পাশেই বেশ ব্যস্ত দেখা গেছে। দুই পাশে বেশ স্বাভাবিক অবস্থায় দেখা যাচ্ছে।

মন্তব্য
Loading...