Sylhet Express

সম্পর্ক বাড়াতে দুই দেশ সফরে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

0 ৩৮১

চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে কসোভো ও আলবেনিয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। শুক্রবার একটি ফ্লাইটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যান প্রতিমন্ত্রী। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তাও রয়েছেন তার সঙ্গে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মো. তৌহিদুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ কসোভোতে বাংলাদেশের পক্ষে এটাই প্রথম আনুষ্ঠানিক রাষ্ট্রীয় সফর। সফরসূচি অনুযায়ী, ১৮ ফেব্রুয়ারি কসোভোর রাজধানী প্রিস্টিনাতে স্বাধীনতা দিবসে তাদের রীতি অনুযায়ী বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী অংশগ্রহণ করবেন। এরপর কসোভোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাসিম থাকির সঙ্গে বাংলাদেশ-কসোভো কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে বৈঠক করবেন শাহরিয়ার আলম।

গত বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ কসোভোকে বাংলাদেশ স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। এর আগে ১১৩টি দেশ কসোভোকে স্বীকৃতি দেয়। ওআইসির ৫৬ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ৩৭তম দেশ হিসেবে রাষ্ট্রটিকে স্বীকৃতি দেয়। ২০০৮ সালে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে কসোভো।

কসোভো সফর শেষ করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী যাবেন আলবেনিয়া। সেখানে তিনি দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মো. ইটজেন জাফেজের সঙ্গে বৈঠক করবেন। বৈঠকে বাংলাদেশ-আলবেনিয়া কূটনৈতিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করবেন।

সেখানে প্রতিমন্ত্রী আসন্ন ওআইসি দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫তম সম্মেলনে আলবেনিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইটজেন জাফেজকে ঢাকায় আমন্ত্রণ জানাবেন। ওআইসির দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৫তম সম্মেলন আগামী মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। প্রায় সাড়ে তিন দশক পর ঢাকায় এ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

কেন এই সফর জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার তৌহিদুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘এই সফর মূলত দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের মুসলিম দেশগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক বাড়ানো। যেন বাংলাদেশ কূটনৈতিকভাবে আরও শক্তিশালী অবস্থানে যেতে পারে।’

এই সফরে দুই দেশের কোনো চুক্তি হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা পরে জানতে পারবেন।’

মন্তব্য
Loading...