জাফর ইকবালকে হামলাকারীর অবস্থা আশঙ্কাজনক (ভিডিও)

0 ১,৪৮৪

সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ড. জাফর ইকবালের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।  তার ঘাড়ে ছুরিকাঘাতের চেষ্টা হয়েছিল।  তবে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে ছুরির আঘাত তার মাথায় লেগেছে। শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছুরিকাহত অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে ঢাকায় আনা হচ্ছে। এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকায় আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার অস্ত্রোপচার চলছে। বিকালে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তার ওপর হামলা করে এক যুবক। হামলাকারীকে গণপিটুনি দিয়ে আটক করেছে শিক্ষার্থীরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান বিকালে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে ট্রিপল-ই বিভাগের অনুষ্ঠানের মঞ্চে তাকে পিছন দিক থেকে মাথায় ছুরিকাঘাত করে ওই যুবক।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাসে অধ্যাপক মুহাম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারী যুবক ধরা পড়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে তাকে হাতেনাতে ধরে শিক্ষার্থীরা তাকে গণধোলাই দেন। এতে তার অবস্থা গুরুতর।

শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে জাফর ইকবালের ওপর হামলার পরপরই ওই যুবককে ধরে ফেলা হয় বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন।

ওই যুবককে বেদম পেটানোর পর বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন-২ এ আটকে রাখা হয়েছে। এখনও তার পরিচয় পাওয়া যায়নি বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ইলিয়াস উদ্দিন বিশ্বাস জানিয়েছেন।

ইলেট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ফেস্টিভ্যাল চলছিল ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে। এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যাপক জাফর ইকবাল। সেখানেই তার ওপর হামলা হয়।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন জাফর ইকবাল। র‌্যাগিংয়ের দায়ে পাঁচ ছাত্রের শাস্তি দেওয়া হলে তিনি বলেছিলেন, এদের শাস্তির পরিমাণ কম হয়েছে, তাদের পুলিশে দেয়া উচিৎ।

এদিকে মাথায় জখম অবস্থায় জাফর ইকবালকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তার অস্ত্রোপচার চলছে। হামলার পর রক্তক্ষরণ হলেও তিনি কথা বলছিলেন বলে প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

মন্তব্য
Loading...