১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করলেন ৬৫ বছরের সুরত আলী

0 ৪৮৪

সিলেটে তেতুল খাওয়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করেছেন সুরত আলী নামে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ। গত রোববার সিলেটের শাহপরান আল মদিনা আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতাবস্থায় ওই শিশুটিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

ভিকটিম শাহপরান এলাকার তাহমিম আইডিয়াল স্কুলের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।
মঙ্গলবার দুপুরে ভিকটিমের মা রোজিনা বেগম ডেইলি বাংলাদেশকে জানান, গত রোববার বিকেলে তার মেয়ে ঘরের পাশে অন্যান্য শিশুদের সাথে খেলছিল।

এসময় পাশের বাসার কেয়ারটেকার ও শাহপরান ছড়ারপাড় এলাকার সুরত আলী (৬৫) তেতুল খাওয়ানোর কথা বলে ঘরে ডেকে নিয়ে যায়।

ঘরে নিয়ে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় শিশুর আর্তচিৎকারে অন্যান্য শিশুরা এগিয়ে গেলে বৃদ্ধ ঘর থেকে বেরিয়ে যায়। পরে আহতাবস্থায় তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, গতকাল সোমবার সুরত আলীর ছেলে মিজান (৩৫) ভিকটিমের বাড়িতে এসে মামলা না করার হুমকি দিয়ে যান। মামলা করলে এলাকা থেকে বের করে দেওয়ার হুমকি দেন তিনি।

ভিকটিমের পিতা আল আমীন জানান, আমার মেয়ের এই অবস্থা দেখে আমরা দিশেহারা হয়ে পড়েছিলাম। কি করবো বুঝতে পারছিলাম না। আজ (মঙ্গলবার) মামলা দায়ের করা প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি।

এ ব্যপারে শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন জানান, শাহপরান এলাকায় একটি শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে আমাকে একজন ফোনে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে আর কিছু জানিনা। এ পর্যন্ত ধর্ষণের বিষয়ে থানায়ও কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য
Loading...