কুখ্যাত ইয়াবা সম্রাট জুনেদ জেলে কিন্তু থেমে থাকেনি তার মাদক ব্যবসা

0 ৩৯১

সিলেটের ইয়াবা সম্রাট জুনেদ অবশেষে গ্রেফতার হয়েছে। সিলেট নগরীর সাদাটিকর এলাকা থেকে ৪০ (চল্লিশ) পিস ইয়াবা সহ পুলিশ তাকে আটক করে।

তাকে আটক করায় এলাকাবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। খবর নিয়ে জানা যায়, বিএনপির রাজনীতির সম্পৃক্তের অন্তরালে দীর্ঘদিন সাদাটিকর এলাকায় ইয়াবা ব্যবসা করে আসছিল। সিলেট ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাদাটিকর এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে ছোট একটি চায়ের দোকানের আড়ালে সিলেটের সর্বত্র ইয়াবা কেনাবেচা ও সরবরাহ করাই তার মূল ব্যবসা।

সিলেট শাহপরান (রহঃ) থানার ওয়ারেন্ট অফিসার এসআই রাজীব কুমার রায় সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ০৮-৯৪-১৯ ইং তারিখে ৪০ (চল্লিশ) পিস ইয়াবাসহ তাকে আটক করে। এই ঘটনায় এসআই/রাজীব কুমার রায়, শাহপরাণ (রহঃ) থানায় বাদী হয়ে মাদক ব্যবসায়ী ধৃত আসামী ১। দেলোয়ার হোসেন @ জুনেদ (৩৮) পিতা- মো: মতিন মিয়া, সাং- আশা- ২০, ব্লক- এ, পূর্ব সাদাটিকর, থানা-শাহপরাণ(রহ:), জেলা-সিলেট এর বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬(১) এর টেবিল ১০(ক) ধারায় এজাহার দাখিল করলে, শাহপরাণ (রহঃ) থানার মামলা নং-০৯ তাং-০৮/০৪/১৯খ্রিঃ, ধারা-২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬(১) এর টেবিল ১০(ক) রুজু হয়। বর্ণিত ধৃত আসামী দেলোয়ার হোসেন @ জুনেদ (৩৮) এর বিরুদ্ধে শাহপরান (রহ:) থানার মামলা নং- ০২ তাং- ০৩/০৬/২০১৭ খ্রি: ধারা- ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯(১) এর ৯(ক) বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। ধৃত আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, পুলিশ ও স্থানীয়দের নজর এড়াতে নিজ বাড়ির সামনে চায়ের দোকানে অবৈধ ভাবে ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রি করে জুনেদ। এলাকার কেউ তার এই অবৈধ ব্যবসার প্রতিবাদ করলে উল্টো হামলা ও মামলায় ফাঁসিয়ে হয়রানি করে থাকে। তার নেতৃত্বে এলাকায় ১০-১২ জনের ইয়াবা সিন্ডিকেট চক্র রয়েছে। এমনকি জুনেদ জেলে যাওয়ার পরও থেমে থাকেনি তার মাদক ব্যবসা। বর্তমানে তার সিন্ডিকেট সদস্যরা সিলেট উপশহরের এইচ ব্লকে দুই ও তিন নং রোডে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য
Loading...