Sylhet Express

নাদেলের করোনা আক্রান্তের খবর, যা জানালো আরটিপিসিআর ল্যাব

0 ১০০

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে হঠাৎই নাদেলের করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হয়। গণমাধ্যমকে তিনি নিজেই নিশ্চিত করেন বিষয়টি। তবে নাদেলের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কোনো তথ্যই নেই করোনাভাইরাস শনাক্তে সিলেটে স্থাপিত দুটো ল্যাবের কোনোটিতেই। সিলেটের দুটি ল্যাবের গত তিনদিনের করোনা পজিটিভ তালিকায় নাম নেই শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল এর।শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল গণমাধ্যমকে জানান, জ্বর অনুভূত হওয়ায় বুধবার তিনি করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন শামসুদ্দিন হাসপাতালে । বৃহস্পতিবার রাতে তাকে ফোনে জানানো হয় তিনি করোনা পজেটিভ অর্থাৎ তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। এরপর থেকে তিনি বাসায় আইসোলেশনে আছেন।জানা গেছে, বুধবার ওসমানী মেডিকেল কলেজের করোনা ল্যাবে ২২ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন , বৃহস্পতিবার শনাক্ত হন ১২ জন এবং শুক্রবার শনাক্ত হন ৩৮ জন। এই তিনদিনে ৮২জনের করোনা আক্রান্ত হওয়াদের তালিকা পর্যবেক্ষণ করে শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলের নাম তালিকায় পাওয়া যায়নি। এছাড়া গত দুইদিনে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে যাদের করোনা শনাক্ত হয়েছে সেই তালিকায়ও নেই নাদেলের নাম। ফলে নাদেলের করোনা আক্রান্ত হওয়া নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে।এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান বলেন, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে শুনেছি। তবে আমি বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারব না। কারণ আমার কাছে যেসব তালিকা এসেছে সেটিতে তার নাম নেই।তবে, ওসমানী মেডিকেল কলেজ আরটিপিসিআর ল্যাবের একটি সূত্র জানিয়েছে, গোপনীয়তা র কথা বিবেচনায় রেখে শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল এর নমুনা ল্যাব এর একটি বিশেষ আইডি নম্বর দিয়ে পরীক্ষা করা হয়। প্রথাগতভাবে নমুনাগুলোতে যে আইডি সিরিয়াল দেয়া হয় সে সিরিয়ালে নাদেলের নমুনা দেয়া হয়নি। যে কারণে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে পাঠানো পজিটিভ তালিকায় তার নাম যায়নি। বিশেষ আইডি দিয়ে পরীক্ষাশেষে পজিটিভ রেজাল্ট আসলে তা সাথে সাথে নাদেলকে ফোনে জানিয়ে দেয়া হয়। গোপনীয়তার জন্য এ কাজ করা হলেও একদিনের মাথায় নাদেল নিজেই তা জানিয়ে দেন গণমাধ্যমে।

মন্তব্য
Loading...