Sylhet Express

৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে প্রাণ গেল মেধাবী ছাত্রীর

0 ২৯১

সোনারগাঁয়ের মেধাবী ছাত্রী ইসরাত জাহান উষ্ণ তিন হাসপাতাল ঘুরে আইসিইউ না পেয়ে অবশেষে মা’রা গেলেন। শ্বা’সকষ্টের কারণে তার মৃ’ত্যু হয়। করোনায় আক্রান্তের ভয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে চিকিৎসা দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন স্ব’জনরা।শুক্রবার সকাল থেকে ঘুরে ঘুরে বিকেল তিনটার দিকে মারা যায় উষ্ণ। মৃ’ত্যুর জন্য মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালকে দায়ী করেছেন নিহত উষ্ণের দুলাভাই বুয়েটের সিনিয়র সহকারি লাইব্রেরিয়ান মো. ইসমাইল হোসেন। উষ্ণের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

মো.ইসমাইল হোসেন জানান উপজেলার বারদী ইউনিয়নের আলমদী গ্রামের ওয়াহিদ ভূইয়ার মেয়ে ও কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে হিসাব বিজ্ঞানের মেধাবী শিক্ষার্থী ইসরাত জাহান উষ্ণ গত ৬ জুন শনিবার সিজারের মাধ্যমে মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন।পরে ১১ জুন বৃহস্পতিবার তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়।

পরে তিনি সোনারগাঁয়ের আলমদীর বাড়িতে গেলে শুক্রবার সকালে তার খিচুনি হয়ে মুখ দিয়ে লালা বের হতে থাকে।দ্রুত তাকে পুনরায় মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালেে নিয়ে যান স্বজনরা।হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে আইসিইউর দোহায় দিয়ে কোনো চিকিৎসা দেয়নি।উষ্ণকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়।ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে।ঢামেকেও আইসিইউ না থাকায় তাকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সে তিনি মারা যান।

ইসরাত জাহান উষ্ণ বারদী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৬ সালে ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। তিনি কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে হিসাব বিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যায়নরত ছিলেন।এ বিষয়ে জানতে মাতুয়াইল শিশু মাতৃসদন হাসপাতালে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও কেউ ফোন রিসিভ করেননি।

মন্তব্য
Loading...